ইতিহাসে এই প্রথম মালয়েশিয়ায় এই সিদ্ধান্তঃ আগামী ১৪দিন জরুরী অবস্থা জারি করে গতিবিধির উপর নিষেধাজ্ঞা

আজ ১৬ই মার্চ রাত ১০ টায় মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী তান শ্রী মুহিউদ্দিন ইয়াসিন জনগণের উদ্দেশ্য একটি বিশেষ সংবাদ সম্মেলনে কোভিড-১৯ পরিস্থিতি

মোকাবেলায় মালয়েশিয়া নিয়ন্ত্রণ করার লক্ষ্যে সবকিছুই বন্ধ থাকবে যা জরুরি অবস্থা জারিকে নির্দেশ করে। মালয়েশিয়ার ইতিহাসে এই প্রথম এ জাতীয় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, সংক্রামক রোগ প্রতিরোধ আইন ১৯৮৮ এবং পুলিশ আইন ১৯৬৭ এর অধীনে সরকার সকল "গতিবিধির উপর বিধিনিষেধ আদেশ" জারি করেছে। এই মুহুর্তে সরকারের প্রধান কাজ হল নতুন সংক্রমণের বিস্তার এড়ানো যাতে করে আরও বেশি লোক আক্রান্ত না হয়।  অতএব, সরকারের তরফ কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া

দরকার। আজ রাত ১০টায় আস্ট্রো আওয়ানি, আরটিএম, টিভি 3 এবং বার্নামা টিভিতে সম্প্রচারিত এক বিশেষ ঘোষণায় তিনি বলেন, আগামী ১৮ ই মার্চ থেকে ৩১ শে মার্চ ২০২০ পর্যন্ত সরকার  "গতিবিধির উপর বিধিনিষেধ আদেশ’ বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।। টিএস মহিউদ্দিন বলেছেন, এর অর্থ হ'ল সুপারমার্কেট এবং মুদি দোকানগুলির প্রতিদিনের প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র বিক্রি বাদে সমস্ত ব্যবসায়ের প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ থাকবে।  তিনি বলেছিলেন, এমন জরুরি অবস্থার সময় ইউটিলিটি, টেলিযোগাযোগ,

পরিবহন, ব্যাংকিং, স্বাস্থ্য, ফার্মেসী, বন্দর, বিমানবন্দর, পরিচ্ছন্নতা ও খাদ্য সরবরাহের মতো প্রয়োজনীয় পরিষেবা ব্যতীত সকল সরকারি ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ থাকবে।

আরও পড়ুন টপ নিউজগুলো  



 তিনি আরও বলেছিলেন যে এই আদেশের অংশ হিসেবে মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত সকল নাগরিকদের বিদেশ ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞার ব্যবস্থা করা হবে এবং কোনও পর্যটক বা বিদেশিদের মালয়েশিয়ায় প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না।

 আরও জানতে চোখ রাখুন অভিবাসী কন্ঠ পেইজে 

2 comments:

Theme images by Dizzo. Powered by Blogger.