মালয়েশিয়ায় প্রবাসীদের চেক করার নামে পুলিশি হয়রানি বন্ধের নির্দেশ

0
3976

 

কাগজপত্র ও ডকুমেন্টস থাকার পরও পুলিশের হাতে হয়রানি হয়নি এমন প্রবাসী খুব কমই আছে মালয়েশিয়ায়।
মালয়েশিয়ায় বসবাসরত বিদেশী অভিবাসীদের পুশিশ কর্তৃক ভিসা ও কাগজপত্র চেক করার নামে হয়রানি বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ আবদুল্লাহ সানী।

বিদেশিদের সঠিক কাগজপত্র আছে কী নেই শুধুমাত্র যাচাই করার জন্য পুলিশ তাদেরকে ১৪ দিনের রিমান্ডে রাখেন। আর এই আইনের সুযোগে কিছু পুলিশ কর্মকর্তা তাদের ক্ষমতার ব্যবহার করে বিদেশিদের হয়রানি করা হচ্ছে। তাই এই হয়রানি বন্ধে তিনি যাবতীয় পদক্ষেপ নিবেন।

আজ শুক্রবার (৭ই মে) সকালের দেশটির মালয়েশিয়ার বার্তা সংস্থা বারনামায় দেওয়া এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, এই আইনটি অপব্যবহার বন্ধে শীঘ্রই এটা বাতিলের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি এর অপব্যবহার করে কোন পুলিশ সদস্য যাতে অভিবাসীদের হয়রানি না করতে পারে সেজন্য একটি প্রজ্ঞাপন জারি করবেন। মুষ্টিমেয় কিছু পুলিশ কর্মকর্তা এই আইনটি ব্যবহার করে তারা বিদেশি অভিবাসীদের হয়রানি করছে এটা বন্ধ করতে হবে।

উল্লেখ্য মালয়েশিয়া বালাই (থানা) পুলিশের হাতে প্রবাসীদের হয়রানি এই অভিযোগ দীর্ঘদিনের। বলা হয় কাগজপত্র ও ডকুমেন্টস থাকার পরও পুলিশের হাতে হয়রানি হয়নি এমন প্রবা

কাজে যাওয়া আসার পথে বালাই পুলিশ গাড়ি ও মোটরসাইকেল নিয়ে প্রবাসীদের হয়রানি করে। কাগজপত্র ও ভিসা চেক করার নামে মোটা অংকের টাকা দাবি করে। এমনকি ভিসা ও কাগজপত্র সব সঠিক থাকলেও তারা টাকা দাবি করে। না দিলে ১৪ দিন রিমান্ডে নেওয়ার ভয় দেখানো হয়। তখন প্রবাসীরা বাধ্য হয়েই পুলিশকে ঘুষ দিতে হয়।

কারণ দেশটির পুলিশের একটি আইন অনুযায়ী অভিবাসীদের ভিসা পারমিট আসল না নকল সেটা যাচাই করার জন্য পুলিশ যেকোন বিদেশিকে ১৪ দিনের রিমান্ডে নিতে পারবে। এই আইন বাতি নির্দেশনার পর বিদেশিরা স্বস্তি বোধ করছেন। কারণ পুলিশের ভয়ে সব সময় শঙ্কায় থাকতেন।


LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here