মালয়েশিয়ায় অত্যন্ত সুকৌশলে গত ২ মাসে প্রায় সাড়ে ৮ হাজার অবৈধ অভিবাসী গ্রেফতার। অভিবাসী কন্ঠ।

0

মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভাগ পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী নির্দিষ্ট টার্গেটে একের পর এক ধড়-পাকড় অভিযান পরিচালনা করে আসছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে ২০২০ সালের মধ্যে ৭০ হাজার অবৈধ অভিবাসী গ্রেফতার করার নির্দেশ রয়েছে তাই সেই মতোই এগিয়ে যাচ্ছে ইমিগ্রেশন। মালয়েশিয়াকে অবৈধ শূন্য করতে ইমিগ্রেশন নিয়েছে বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ। বিভিন্ন কৌশলে, বিভিন্ন মাধ্যমে অভিযান গুলো পরিচালনা করা হচ্ছে। এসব অভিযানে স্থানীয় নাগরিকদের সচেতন হয়ে সরকারি কাজে সাহায্য করতে বলা হয়েছে। ইমিগ্রেশন গত বছরের শেষের দিকে জনসাধারণের অভিযোগের জন্য বিভিন্ন পদ্ধতি চালু করেছিল যাতে করে

দেশটির নাগরিকগণ অবৈধভাবে অবস্থানকারী বিদেশি শ্রমিকদের অবস্থান, কর্মস্থল ইত্যাদি সম্পর্কে ইমিগ্রেশন ও অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে অবহিত করতে পারে। তাই গত বছরের তুলনায় সবচেয়ে বেশি অভিযান চালানো হয়েছে ২০২০ সালের প্রথম ২ মাসেই। ইমিগ্রেশন অভিযানে এই পর্যন্ত সর্বমোট ৮,২৫৩ জন অবৈধ অভিবাসীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অভিযান চালানো হয়েছে মালয়েশিয়ার পেনাং রাজ্যে। মালয়েশিয়ার পেনাং রাজ্য ইমিগ্রেশন

প্রতিদিন পেনাং এর কোথাও না কোথাও অভিযান পরিচালনা করছেই। ছোট ছোট ঝটিকা অভিযানে এই পর্যন্ত আটক হয়েছে অনেক বাংলাদেশী যেখানে ভিসা থাকলেও অনেকেই হয়েছে গ্রেফতার। কুয়ালামাপুরের কোম্পানির নামে ভিসা করিয়ে চাকরি করছে পেনাংয়ের ভিন্ন কোম্পানিতে। এমন অনেকেই আটক হয়েছেন। মালয়েশিয়ার অভিবাসন বিভাগের মহাপরিচালক দাতু খাইরুল জাইমি বিন

 দাউদ এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন যে, চলতি বছরের ১লা জানুয়ারি থেকে ২২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত পুরো মালয়েশিয়া জুড়ে ২,৯৯৯৩ টি অভিযানে সর্বমোট ২৯,৯৯ জনকে যাচাই-বাছাই করে ৮,২৫৩ জনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে ইমিগ্রেশন বিভাগ। তবে এর মধ্যে ঠিক কতজন বাংলাদেশী রয়েছে সেই সংখ্যাটি সুনির্দিষ্টভাবে জানানো হয়নি। নতুনভাবে অত্যন্ত সুকৌশলে এই বছরে এসব অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here