মালয়েশিয়ার মন্ত্রীর আবারও হুশিয়ারি, শ্রমিকদের করোনা টেস্ট না করালে মালিকদের জেল

0

মালয়েশিয়ায় অভিবাসী কর্মীদের কোভিড-১৯ ভাইরাস প্রতিরোধী ভ্যাক্সিন বাধ্যতামূলক করেছে দেশটির সরকার।
যেসকল কোম্পানি মালিকগন তাদের অভিবাসী কর্মীদের ভ্যাক্সিন দিবেন না বা ভ্যাক্সিন প্রদানে অযুহাত দেখাবেন তাদের বিরুদ্ধে জেল জরিমানার বিধান আরোপ করে কড়া নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।


গত বৃহস্পতিবার (১৮ই ফেব্রুয়ারী) মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রী এম সারাভানান একটি ভার্চুয়াল বা অনলাইন ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানান। এর আগেও তিনি এই বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে কোম্পানি মালিকদের প্রতি তাদের কর্মীদের ভ্যাক্সিন প্রদানে আহ্বান জানান।

সারাভানান বলেন, দেশে বিভিন্ন ফ্যাক্টরির মালিক গণ তাদের কর্মীদের জন্য সাধারণ মানের বসবাসের ব্যবস্থা দিয়েছে যেকারণে এই সব আবাসস্থল বা হোস্টেল গুলো কোভিড-১৯ এর সর্বোচ্চ ঝুঁকিতে থাকে। এ ধরনের মালিকদের খুজে বের করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি আরও জানান, জাতীয় টিকা দান কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর সরকারি হাসপাতাল গুলো তে বিদেশি কর্মীদের টিকা দেয়ার জন্য আমরা দেশের কোম্পানি মালিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছি। এছাড়াও অভিবাসী কর্মীদের নূন্যতম আবাসন ও সুযোগ সুবিধা (সংশোধনী) আইন ২০০৯ এর ৪৪৬ ধারা লঙ্ঘনের অভিযোগে কোম্পানি মালিকদের তিন বছর কারাদণ্ড ও সর্বোচ্চ ২০০’০০০ রিঙ্গিত জরিমানা হওয়ার বিধান রয়েছে


এছাড়াও সরকার প্রাথমিকভাবে নিয়োগকর্তাদের অনুরোধ করেছিল তাদের বিদেশী শ্রমিকদের সকল টিকা দানের খরচ বহন করতে, কিন্তু মন্ত্রিসভা পরে দেশের স্থানীয় নাগরিকের জন্য বিনামূল্যে কোভিড-১৯ টিকা প্রদানের সিদ্ধান্ত নেন পাশাপাশি বিদেশী কর্মীদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়। সেই সাথে কূটনীতিবিদ, বিদেশী শিক্ষার্থী, বিদেশী স্বামী-স্ত্রী এবং সন্তান, জাতিসংঘের শরণার্থী কার্ড ধারীদের জন্য এই বিনামূল্যে করোনা টিকা প্রদান করা হবে। অবর্তমানে মালয়েশিয়ায় প্রায় ১.৭ মিলিয়ন বৈধ বিদেশী কর্মী রয়েছে

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here