এবার মালয়েশিয়ায় পিস্তল নিয়ে ভিক্ষা করার সময় ১১ জন অবৈধ শিশু আটক, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। অভিবাসী কন্ঠ।

0

গতকাল একটি খেলনা বন্দুক সাথে নিয়ে  ভিক্ষা ভিক্ষা করার সময় একটি বাচ্চা ছেলে এবং ১৪ জনকে লাহাদ দাতু জেলা পুলিশ সদর দফতরের এক পুলিশ অফিসার দ্বারা আটক করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই এই ছবিগুলো মালয়েশিয়ার বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে যা নিয়ে সাধারণ নাগরিকদের মধ্যে

বিভিন্ন প্রতিক্রিয়া দেখা যায়।মালয়েশিয়ার গণমাধ্যম এস্ট্রো আওয়ানি জানিয়েছে, তাদেরকে তামান জায়া এবং বান্দার শ্রী পারদানা ট্র্যাফিক লাইট এলাকার অপারাস ক্যান্টাসে সকাল দশটার দিকে আটক করা হয়েছে। লাহাদ দাতু জেলা পুলিশের প্রধান সহকারী কমিশনার নাসরী মনসুর বলেছেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল ছবিতে দেখানো হয়েছে যে,

একটি শিশু শিক্ষা করার সময় তার হাতে একটি পিস্তল নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে।  পরে লাহাদ দাতু ফৌজদারি তদন্ত বিভাগের কর্মকর্তারা এবং সদস্যরা ঘটনাস্থলে যান। সেখান থেকে আটককৃত 15 জনই 6 মাস থেকে 31 বছর বয়সী ছিলেন।

 এবং তদন্তে আরও দেখা গেছে যে তাদের সকলেরই কোনও বৈধ পরিচয় পত্র নেই। অর্থাৎ তারা বিদেশী নাগরিক হিসেবে অবৈধভাবে বসবাস করে অবৈধ কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি এক বিবৃতিতে বলেছেন, “আটককৃতদের মধ্যে ১১ জনই শিশু।

 নাসরির মতে, পুলিশ তদন্তে দেখা গেছে যে উপহারের জন্য ভিক্ষাবৃত্তির সময় শিশুটি যে অস্ত্রটি বহন করেছিল মূলত সেটা ছিল নিছক একটি খেলনা বন্দুক যা বাচ্চাটির মা তাকে অন্য বাচ্চাদের সাথে খেলতে দিয়েছিলেন।

 তিনি বলেন, “আটককৃত সকলকে পরবর্তী পদক্ষেপের জন্য লাহাদ দাতু থানায় নেওয়া হয়েছিল এবং ইমিগ্রেশন আইন ১৯৫৯ / 63৩ এর ধারা ((১) (গ) এর অধীনে মামলাটি তদন্ত করা হচ্ছে,” তিনি বলেছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here