আবারও মালয়েশিয়ার কন্সট্রাকশন সাইটে অভিযান, ৬০ জন জঙ্গলে পালিয়ে গেলেও ১১ জন গ্রেফতার। (বিস্তারিত)

0
13
মালয়েশিয়ায় একটি নির্মানাধীন ভবনে অভিযানের সময় প্রায় ৬০ জন অবৈধ নির্মান শ্রমিক গ্রেফতার আতংকে নিজেদের বাঁচাতে পালিয়ে যায়। স্থানীয় সময় সকাল ১১টার দিকে মালয়েশিয়ার সিআইডিবির কর্মকর্তারার অভিযান চালানোর চেষ্টাকালে তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে কাজ ছেড়ে অবৈধ শ্রমিকেরা পালিয়ে গেছে।

মালয়েশিয়ায় একটি নির্মানাধীন ভবনে অভিযানের সময় প্রায় ৬০ জন অবৈধ নির্মান শ্রমিক গ্রেফতার আতংকে নিজেদের বাঁচাতে পালিয়ে যায়। স্থানীয় সময় সকাল ১১টার দিকে মালয়েশিয়ার সিআইডিবির কর্মকর্তারার অভিযান চালানোর চেষ্টাকালে তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে কাজ ছেড়ে অবৈধ শ্রমিকেরা পালিয়ে গেছে।

একজন কর্মকর্তা বলেন, তাদের কাছে বৈধ কোনো ডকুমেন্টস না থাকার কারণে ভয়ে তারা পালিয়ে গেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। সেবেরাং পেরাই উতারা জেলা পুলিশ প্রধান ও সহকারী কমিশনার নূরজাইনী মোহাম্মদ জানান, তারা উক্ত অভিযাবে মোট ৪০ জনকে প্রাথমিকভাবে আটক করে সিআইডিবি কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে কাগজপত্র পরীক্ষা করেছে।

তিনি আরও বলেন, যাচাই-বাছাই শেষে ৪০ জনের মধ্য হতে ১১ জনকে অবৈধ হিসেবে শনাক্ত করেছেন৷ তাদের মধ্যে বাংলাদেশী ও ইন্দোনেশিয়ার নাগরিক রয়েছে। তিনি বলেন তাদের বিরুদ্ধে অভিবাসন আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। তবে বেশিরভাগ শ্রমিক পাশের একটি জঙ্গলে বা ঝোঁপের মধ্যে পালিয়ে গেছেন বলে জানান তিনি।

এদিকে, পেনাং রাজ্য সিআইডিবির পরিচালক জাহিদি হাশিম বলেছেন, ঠিকাদারের পক্ষ থেকে তাদের প্রয়োজনীয় তথ্য জমা দেওয়ার জন্য তাঁর দল নির্মাণ স্থানে অস্থায়ী সমাপ্তির নোটিশ জারি করেছে। অর্থাৎ পরবর্তী নির্দেশনা ছাড়া এটির কার্যক্রম বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

তিনি আরও ব্যাখ্যা করেছিলেন যে, ঠিকাদারটি জাতীয় সুরক্ষা কাউন্সিল (এমকেএন) কর্তৃক নির্ধারিত স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং পদ্ধতিগুলি (এসওপি) পালনে ব্যর্থ হয়েছে বলে নোটিশ শেষ না হওয়া পর্যন্ত কোনও কাজ করার অনুমতি দেওয়া হয়নি।

পরিদর্শন শেষে আরও দেখা গেছে যে মূল ঠিকাদার নির্মাণ সাইটটির অংশীদার বাড়িগুলোর সম্পর্কিত নথি এবং অনুমতিপত্র জমা দিতে ব্যর্থ হয়েছে। আমরা দেখতে পেয়েছি যে তাদের বসবাসের স্থানটি বায়ুচলাচল এবং পরিবেশের দিক থেকে নিরাপদ নয় যা কোভিড-১৯ মহামারী ছড়িয়ে দিতে পারে।

তাঁর মতে, বিদেশী কর্মীদের কোভিড -১৯ স্ক্রিনিং পরীক্ষার ফলাফল প্রদর্শন করতে ব্যর্থ হওয়ার কারণে নিয়োগকর্তাকেও নোটিশ জারি করা হয়েছে এবং তার বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here